homo-sapiens-kill-off-all-the-other-humans

বাকি ৯ মানব প্রজাতির বিলুপ্তির কারণ আমরা !

12/01/2019

প্রায় ৩লক্ষ্য বছর আগে নয়টি মানব প্রজাতি পৃথিবীতে পদচারণ করেছিল ,এখন আছে শুধু মাত্র একটি প্রজাতি যা হলাম আমরা ( হোমো স্যাপিয়েন্স)। হোমো নিয়ান্ডারথ্যালেনসিস প্রজাতি বাস করত ইউরোপে। তারা ছিল দক্ষ শিকারী। ডেনিসোভানরা এশিয়াতে, হোমো ইরেক্টাস ইন্দোনেশিয়ায় এবং মধ্য হোমো রোডেসেনসিসে ছিল আফ্রিকাতে।

এদের মধ্যে হোমো নালেদি দক্ষিণ আফ্রিকা, মধ্যে লুজোনেসিস ফিলিপাইনে, হোমো ফ্লোরেসিয়েন্সিস ( “hobbits”) ইন্দোনেশিয়া, এবং  সবচেয়ে রহস্যময় ছিল যারা তাঁদের কে “লাল হরিনের গুহা মানব” হিসেবে  চিহ্নিত করা হয়েছিল। তারা ছিল চীন-এ । এসব প্রজাতিকে বলা হয় “স্মল ব্রেইন” প্রজাতি। তারা আঁকারেও ছিল তুলনামূলকভাবে ছোট।

এসকল প্রজাতির মধ্যে আমরাই সবচেয়ে বেশি খারাপ প্রজাতি। আমাদের মধ্যে আছে প্রতিযোগিতা, ঝগড়া, বিবাদ আর আত্মসাৎ করার প্রবনতা। আমরা কৃষিকাজের জন্য অনেক বনজঙ্গল ধ্বংস করেছি। রোমের কার্থেজের ধ্বংস থেকে শুরু করে আমেরিকার পাশ্চাত্য দেশগুলোতে অন্য প্রজাতিদের নিশ্চিহ্ন করেছি আমরাই।এছাড়াও বসনিয়া , রুয়ান্ডা, ইরাক , দারফুর এবং মিয়ানমারে সাম্প্রতিক গণহত্যা এবং জাতি ধরে নির্মূলকরণের ঘটনাতে আমরাই ছিলাম প্রধান ।

অন্যদিকে আদিম সভ্যতার প্রধান ই ছিল যুদ্ধ এবং শিকার। অর্থাৎ প্রথম থেকেই আমাদের সংস্কৃতি তে ঝামেলা ছিল। যুদ্ধের বিভিন্ন অস্ত্র যেমন ক্লাব, বর্শা, কুড়াল এবং ধনুক এসব দিয়ে ঘটত  ধ্বংসাত্মক সব কাজ। এক প্রজাতির সাথে অন্য প্রজাতির ভয়ংকর যুদ্ধ হত এবং এতে মৃত্যুর হার ছিল প্রথম এবং দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের তুলনায় অনেক বেশি।

পুরানো সকল হাড় এবং নিদর্শনগুলি বলে দেয় এই সহিংসতা প্রাচীন। এছাড়াও কেনিয়ার দশ হাজার বছরের পুরোনো  নাতারুক সাইটে  কমপক্ষে ২৭ জন পুরুষ, মহিলা এবং শিশুদের গণহত্যার কথা লেখা আছে।তবে   গুহার চিত্রকলা , খোদাই এবং বাদ্যযন্ত্রগুলি  তাদের চিন্তাভাবনা, জীবনযাপন থেকে শুরু করে  যুদ্ধের ভয়ানক বর্ণনাও প্রকাশ করে। প্রাচীন গুহা আর্ট থেকেই আবার  বর্তমানের ডিজাইনের সূচনা হয়।এরকম আরো নানা ক্ষেত্রে প্রাচীন সভ্যতাকে কাজে লাগিয়ে বর্তমানের অনেক সভ্যতাই পরিবর্তিত হয়েছে।

আজকের সভ্যতায় এসে আমরা আকাশের দিকে তাকিয়ে তাকিয়ে অবাক হই যে আমাদের মত বা অন্য কোনো প্রজাতির কোনো প্রানের এখনো পর্যন্ত কোনো অস্তিত্ব আছে কিনা। কল্পনার সাথে বিজ্ঞানের যোগ করে এখনো চিন্তা করছি আমাদের থেকেও বুদ্ধিমান কোনো প্রজাতির দেখা হয়তো একদিন মিলবেই তখন আবার হয়তো আমরা বিলুপ্তের পথে চলে যাব।

(originally posted on The conversation)