A woman at a modern workspace with a laptop, surrounded by floating emojis representing various emotions, against a background of digital graphs and charts.

ইমোজি ব্যবহারে বোঝা যায় ব্যক্তির মানসিকতা, ব্যক্তিত্ব, এবং সামাজিক অবস্থান

জানুয়ারি ১৪, ২০২৪

শুধু কথার মাধ্যমে নয়, লেখার মাধ্যমেও প্রকাশ পেতে পারে ব্যক্তির মানসিক অবস্থা। টেক্সট মেসেজের মাধ্যমে আবেগের সহজ বহিঃপ্রকাশের জন্য ব্যবহার করা হয় ইমোজি।

ইমোজি হলো ৩২*৩২ পিক্সেলের ছোট এক প্রকারের ক্যারেক্টার যার মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের আবেগ প্রকাশ করা যায়। একজন ব্যক্তির মানসিক অবস্থা এবং ব্যক্তিত্ব কেমন সেটা ইমোজি ব্যবহারের উপর অনেকাংশে প্রকাশ পায়।
মেসেজের মধ্যে দিয়ে ভাবের আদান প্রদান করার একটি গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম হলো ইমোজি। এই ছোট ছোট ক্যারেক্টারগুলো লেখাকে যেমন রসাল ও চমকপ্রদ করে তোলে তেমনি গভীর ভাবে ভাবনাতেও ফেলে দিতে পারে।
করোনা মহামারীর সময়, সবাই অনলাইনে অনেক বেশি সক্রিয় হয়ে উঠেছিল। এই সময়ে মানসিক অবস্থা বুঝানোর জন্য ইমোজির ব্যবহার ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে।

ইমোজি আবেগ প্রকাশের একটি কার্যকর উপায় হতে পারে। উদাহরণস্বরূপ, একটি হাসিমুখের ইমোজি ব্যবহার করে মনের খুশি এবং একটি কান্নার ইমোজি ব্যবহার করে মনের কষ্ট সহজে প্রকাশ করা যায়। ইমোজি ব্যবহার করে ভেতরের অনুভূতিগুলিকে আরও সঠিকভাবে এবং দৃঢ়ভাবে প্রকাশ করা যায় , যা যোগাযোগকে আরও অর্থপূর্ণ করে তুলতে পারে।

তবে কিছু গবেষণায় দেখা গেছে যে ইমোজির কার্যকারিতা মানসিক স্বাস্থ্যের উপর ভিত্তি করে পরিবর্তিত হতে পারে। উদাহরণস্বরূপ, মানসিক ভাবে সমস্যাগ্রস্থ ব্যক্তিরা ইমোজিগুলিকে সঠিকভাবে ব্যবহার করতে পারেনা, যার ফলে মেসেজ গ্রহীতার সাথে ভুল বোঝাবুঝি হতে পারে। এছাড়াও কিছু ইমোজি যেমন কান্নার, মন খারাপের, রাগের, হতাশার ক্যারেক্টারগুলো ব্যক্তির মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যার লক্ষণ প্রকাশ করে।

গবেষক ২২২ জন ইমোজি ব্যবহারকারীর উপর পরীক্ষা করেছেন। পরীক্ষাটি দু’ধরণের মানসিক অবস্থার মানুষদের মধ্যে করা হয় যারা মানসিকভাবে প্রফুল্ল এবং যারা মানসিকভাবে উদ্বিগ্ন আছেন।

ফলাফলে দেখা যায় যারা মানসিকভাবে প্রসন্ন তারা ইতিবাচক ইমোজি বেশি ব্যবহার করেন এবং যারা মানসিকভাবে অস্থির তারা নেতিবাচক ইমোজি বেশি ব্যবহার করেন। এছাড়াও, সামাজিকভাবে সক্রিয় ব্যক্তিরা ইতিবাচক ইমোজি বেশি ব্যবহার করেন।

এই গবেষণায় গবেষকরা একটি সীমাবদ্ধতার কথা উল্লেখ করেছেন যে, গবেষণায় প্রযুক্তিগত ত্রুটির কারণে কিছু অংশের ডেটা ব্যবহার করা সম্ভব হয়নি। কিন্তু, এই ত্রুটি গবেষণার ফলাফলের উপর কোনো প্রভাব ফেলেনি। ইমোজি আসলে ছোট্ট একটি কারেক্টার নয়।এটি লেখাকে করে তোলে মজার,বোঝার জন্য সহজ,আর কথার মধ্যে এনে দেয় আলাদা মিষ্টতা।

ইমরান হোসেন, নিলীম আহসান


তথ্যসূত্র:

Carroll, J. (2023). The Role of Prosocial Behaviour, Personality and General Mental Health in Predicting Emoji Use and Preference. Psychological Reports, 0(0). https://doi.org/10.1177/00332941231220304