A Bangladeshi mother in a traditional saree and her child with black hair share a warm embrace, smiling in a cozy, sunlit indoor setting.

শিক্ষিত মায়েরা সন্তানের পরিক্ষায় সাফল্যের সম্ভাবনা বাড়ায়

ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২৪

৭৯টি দেশের প্রোগ্রাম ফর ইন্টারন্যাশনাল স্টুডেন্ট অ্যাসেসমেন্ট (পিসা) পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী ৬ লক্ষ ১৫ হাজার ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে করা এক গবেষণায় দেখা গেছে যে, মায়ের শিক্ষাগত যোগ্যতা এবং সন্তানের পরীক্ষার ফলাফলের মধ্যে একটি সম্পর্ক রয়েছে। যেসব মায়েরা শিক্ষিত, তাদের সন্তানদের স্কুলে ভালো করার সম্ভাবনা বেশি থাকে।

ছাত্রছাত্রীদের শিক্ষাগত উন্নয়নে বাবা-মা এবং পরিবেশ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। শিক্ষিত মায়েরা তাদের সন্তানদের জন্য একটি ইতিবাচক শিক্ষার পরিবেশ তৈরি করতে পারেন এবং তাদের স্কুলে ভালো করার জন্য অনুপ্রাণিত করতে পারেন।

মেধা আর পড়াশোনা নির্ভর করে জিন, শারীরিক গঠন আর পরিবেশের উপর।কিন্তু কোন পরিবেশগত বিষয়গুলো বেশি গুরুত্বপূর্ণ, তা এখনও স্পষ্ট নয়।যারা সামাজিকভাবে অসুবিধাপ্রাপ্ত, তাদের বুদ্ধিমত্তা বাড়ানোর সবচেয়ে ভালো উপায় কোনটি, তাও স্পষ্ট নয়।এই গবেষণায় দেখা হয়েছে, পারিবারিক পরিবেশ, স্কুল আর ব্যক্তিগত মনোভাব এর সাথে জড়িত।

গবেষণায় দেখা গেছে যে ১৫ বছর বয়সী শিক্ষার্থীরা নিজেদের পড়াশোনা নিয়ে যত ইতিবাচক ধারণা রাখে, তাদের পড়াশোনার ফলাফল তত ভালো হয়।আরও দেখা গেছে যে শিক্ষার্থীদের বাবা-মায়ের শিক্ষাগত যোগ্যতা, শিক্ষকদের প্রতি মনোভাব, আত্মসম্মান এবং স্বনির্ধারণের মতো বিষয়গুলিও তাদের পড়াশোনার ফলাফলকে প্রভাবিত করে।

শিক্ষিত মায়েদের সন্তানরা সাধারণত পড়াশোনায় ভালো ফলাফল ভালো করে। আশ্চর্যজনকভাবে বাবার শিক্ষাগত যোগ্যতা বা স্কুলের শিক্ষার মানের সাথে পড়াশোনার ফলাফলের তেমন কোনো সম্পর্ক পাওয়া যায়নি।

এছাড়াও গবেষণায় দেখা গেছে যে ছাত্রছাত্রীদের নিজেদের পড়াশোনা নিয়ে ইতিবাচক ধারণা থাকা তাদের ফলাফলের উপর আরও বেশি প্রভাব ফেলে। সুতরাং, সন্তানের ভালো ফলাফলের জন্য শুধু স্কুলের পাঠ্যক্রমের দিকে না তাকিয়ে পারিবারিক পরিবেশ, বিশেষ করে মায়ের শিক্ষাগত মনোভাবের দিকেও নজর দেওয়া উচিত।

চিরাচরিত ধারণার বিপরীতে, এই গবেষণাটি দেখিয়েছে যে ভালো স্কুলের শিক্ষা এবং উচ্চ আত্মসম্মান সরাসরিভাবে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার ফলাফলের সাথে সম্পর্কিত নয়। এর পরিবর্তে, মায়ের শিক্ষাগত যোগ্যতা এবং শিক্ষার্থীদের নিজেদের পড়াশোনা নিয়ে ইতিবাচক মনোভাব তাদের ফলাফলকে বেশি প্রভাবিত করে।

বাবা-মা যদি সন্তানদের সাহায্য করে এবং তাদের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দেয়, তাহলে সন্তানরা ভালো ফলাফল করতে পারে।নিজের লক্ষ্য অর্জনে দৃঢ়তা,পরিশ্রম এবং দায়িত্বশীলতা এটাই আসলে ভালো ফলাফলের সাথে জড়িত।

তবে এই গবেষণার কিছু সীমাবদ্ধতা রয়েছে, যেমন মানুষের দেওয়া তথ্যের উপর নির্ভরতা। সুতরাং ভবিষ্যতের গবেষণায় আরও বেশি ডেটা এবং বিষয় বিবেচনা করে এই বিষয়ে আরও সঠিক ধারণা পাওয়া যেতে পারে।

ইমরান হোসেন


তথ্যসূত্র

Furnham, A., & Cheng, H. (2024). The role of parents, teachers, and pupils in IQ test scores: Correlates of the Programme for International Student Assessment (PISA) from 74 countries. Personality and Individual Differences, 219, 112513. https://doi.org/10.1016/j.paid.2023.112513