A smartphone screen displaying social media app icons.

প্রদাহ এবং সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারের মধ্যে সম্পর্ক

জানুয়ারি ২২, ২০২৪

নতুন একটি গবেষণায় দেখা গেছে যে, শরীরে প্রদাহের মাত্রা বেশি থাকলে মানুষ সোশ্যাল মিডিয়া বেশি ব্যবহার করে। সিআরপির মাত্রা বেশি থাকা ব্যক্তিরা সাধারণত সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশি সময় ব্যয় করেন। সিআরপি হলো একটি প্রোটিন যা শরীরে প্রদাহের মাত্রা পরিমাপ করতে ব্যবহৃত হয়।

গবেষকরা মনে করেন, প্রদাহের মাত্রা বেশি থাকলে তা মানুষের সামাজিক আচরণকে প্রভাবিত করতে পারে। প্রদাহের কারণে মানুষ মানসিক চাপ, উদ্বেগ এবং বিচ্ছিন্নতা অনুভব করে। এসব অনুভূতি থেকে মুক্তি পেতে মানুষ সোশ্যাল মিডিয়ার দিকে বেশি ঝুঁকে পড়ে।

বিবর্তনীয় দৃষ্টিকোণ থেকেও এই সম্পর্কটি বোঝা যায়। আমাদের পূর্বপুরুষরা যখন  কোনো সংক্রমণের মুখোমুখি হতো, তখন তারা বেঁচে থাকার জন্য অন্যদের সঙ্গে মিলেমিশে থাকার চেষ্টা করতো। আধুনিক যুগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো মানুষের সামাজিক ভাবে মিলামিশে থাকার একটি সহজ এবং কার্যকর উপায়। এই প্ল্যাটফর্মগুলো ব্যবহার করে মানুষ যেকোনো সময় এবং যেকোনো জায়গা থেকে অন্যদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারে। এতে করে তারা প্রদাহের কারণে সৃষ্ট একাকীত্ব এবং বিচ্ছিন্নতার অনুভূতি থেকে মুক্তি পেতে পারে।

কানাডার বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫২৪ জন ছাত্র-ছাত্রীর শরীরে প্রদাহের মাত্রা পরিমাপ করা হয়। তারা কতক্ষণ এবং কীভাবে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করেন, সে সম্পর্কে তথ্য নেওয়া হয়। এই তথ্যগুলো বিশ্লেষণ করে গবেষকরা দেখেন যে, শরীরে প্রদাহ বেশি থাকলে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারের অভ্যাসেও পরিবর্তন হয় কিনা।

এই গবেষণায় তিনটি আলাদা গবেষণার ফলাফল একসঙ্গে ব্যবহার করা হয়েছে, যার প্রত্যেকটিরই পদ্ধতি এবং মানুষের সংখ্যা আলাদা। এতে করে তুলনা করাটাও কঠিন হয়ে যায়।এই গবেষণায় শুধু সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারের দিকটা দেখা হয়েছে, কোন নির্দিষ্ট প্লাটফর্মে কী কী আচরণ করে, সেটা দেখা হয়নি।

এই সীমাবদ্ধতাগুলির কারণে, গবেষকরা নিশ্চিতভাবে বলতে পারেনি যে, প্রদাহ সরাসরি সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারের কারণ। তবে এই গবেষণাটি ইঙ্গিত দেয় যে, প্রদাহ এবং সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারের মধ্যে একটি সম্পর্ক থাকতে পারে।

এই গবেষণাটি একটি গুরুত্বপূর্ণ শুরু, কিন্তু এটি শেষ নয়।এই গবেষণার ফলাফলগুলি বেশ চমকপ্রদ। এটি আমাদেরকে প্রদাহ এবং সামাজিক আচরণের মধ্যে একটি সম্ভাব্য সম্পর্কের কথা জানায়। এই সম্পর্কটি বোঝার জন্য আরও গবেষণার প্রয়োজন।

ইমরান হোসেন


তথ্যসূত্র

Lee, D. S., Jiang, T., Crocker, J., & Way, B. M. (2023). Can inflammation predict social media use? Linking a biological marker of systemic inflammation with social media use among college students and middle-aged adults. Brain, Behavior, and Immunity, 112, 1-10. https://doi.org/10.1016/j.bbi.2023.05.010